খেলতে খেলতে ভূতের বাড়ি!

1045

ভূত আসছে…ভাগো….৷ নাহ্, শুধু পালালে হবে না, লড়াই করতে হবে, মারতে হবে, কেটে টুকরো টুকরো করে দিতে হবে…আসবে আবার এক বাক্স ভূত৷ তাকে মেরে আবার ভূত বানিয়ে দিতে হবে৷ হ্যাঁ, এই নিয়েই হাজার হাজার গেম আর তাতেই মজে আছে আট থেকে আশি৷

ভূত চতুর্দশীর আসন্ন আবহে শুধু কি পুজো দেখা আর পার্টিতেই মজে থাকবেন? আর যারা এই সবের বাইরে, যারা মোবাইলেও সারেন পুজো পরিক্রমা অথবা বসান আড্ডার আসর, তাঁদের কি হবে? চিন্তার কিছুই নেই৷ একগুচ্ছ অ্যাপস্ রয়েছে তাঁদের জন্য৷ চটপট ডাউনলোড করে রহস্য রোমাঞ্চের দুনিয়ায় ঢুকে পড়ুন৷

14079669_10207139029895777_8791316150268458958_n
শুভজিৎ চ্যাটার্জি

এক্সবক্স হোক বা প্লে স্টেশন, গেমিং কনসোল থেকে স্মার্ট ফোনেই বিভিন্ন মাধ্যমে ভূতের গেমের ছড়াছড়ি৷ এই অশরীরীদের সিনেমা দেখার মতোই গেম গুলো খেলারও এক অন্যরকম মজা আছে৷ তেনাদের হাতছানির মতো গেমের আকর্ষণও আপনাকে বাধ্য করবে একের পর এক স্টেপে ঢুকতে৷ এর মধ্যে কিছু কিছু গেম এতটাই ভয়ের যে ছোটদের খেলা একেবারেই বারণ,তবে এ বারণ কবেই বা কে শুনেছে! তাই সার্ভে অনুযায়ী, এই সব গেমের চাহিদা ছোটদের মধ্যেই সবথেকে বেশি৷

এবার আসা যাক মূল পর্বে৷ কোন কোন গেমে আপনি কোন কোন ভূতেদের জব্দ করতে পারেন, তাঁর কিছু টুকরো খবর দিয়ে দেবো এবার৷ সবথেকে জনপ্রিয় হল ঘোস্ট রাইড থ্রি ডি গেমটি৷ তবে গেম টি খুললেই, অবশ্য সব ভয় কেটে যাবে আপনার, কারণ এখানে আপনিই হলেন আস্ত এক ভূত৷ নানা রকম ভূতেরা বাইকে চেপে ঘুরে বেড়াচ্ছে চারপাশে৷ ঘাত-প্রতিঘাত এড়িয়ে একের পর এক লেভেল ক্রস করে এগিয়ে যেতে হবে আপনাকে৷ আর তাতেই আপনার পকেটে ঢুকবে পয়েন্ট৷

এবার আপনাদের জানাবো স্লেন্ড্রিনা: দ্য সেলার গেমটি ঠিক কি৷ গোলোকধাঁধায় হারিয়ে যেতে চাইলে ই খেলা খেলতে পারেন৷ একটি অন্ধকার কক্ষপথের মধ্যে দিয়ে যেতে যেতে পুরোনো সব বই বের করতে হবে, আর সেই সঙ্গে ভয়ঙ্কর সব ভূতের হাত থেকেও পালাতে হবে একইসঙ্গে, অন্যথায় কি যে হতে পারে, তা খেলার সাহস থাকলে টের পাবেন৷

তবে যারা একটু ভীতু, অথচ ভূতের হাতছানিও উপেক্ষা করতে পারছেন না, তাঁদের জন্য রয়েছে টকিং ঘোস্ট৷ এই ঘোস্ট বেশ মজার৷ এক জনপ্রিয় ধারাবাহিকের ছোট্ট ভুতুর মতোই, এই খেলার ভূতও খুব কথা বলে৷ আর এ স্মৃতিশক্তি এতটাই ভালো, যে আপনি হয়ে যাবেন তাজ্জব৷

plants-vs-zombie

আরও একটি গেম খুবই জনপ্রিয়৷ তা হল, প্ল্যান্টস ভার্সেস জ়ম্বি এই গেমে আপনাকে নিজের বাড়ি সুরক্ষার দায়িত্ব নিতে হবে বেশ সচেতনতার সঙ্গে৷ কারণ প্রতি মুহূর্তেই অদ্ভুত সব ভূতেরা হামলা চালাবে, আর তাঁদের টার্গেটই হচ্ছে কিভাবে আপনার বাড়ির মধ্যে ঢোকা যায়৷ বেঁটে ভূত, লম্বা ভূত, উড়ন্ত ভূত, সশস্ত্র ভূত, কে নেই সেখানে৷ তবে ভয় পাওয়ার কিছু নেই, কারণ আপনাকে বাঁচাতে হাজির থাকবে আপনারই বাড়ির সামনের বাগানের গাছ, গাছের ফল৷ তাই গাছেদের যত্ন যত তাড়াতাড়ি নিতে পারবেন ততই মঙ্গল, নাহলে ঘিলু চটকাতে এই জ়ম্বিরা বেশি সময় নেবে না কিন্তু৷ এই গেমে যে পরিবেশ সচেতনতার কথাও উঠে এসেছে একইসঙ্গে, সেটা কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না৷

তবে ভূতের গেমে ভয় পাওয়াটাই প্রধান আকর্ষণ যাদের কাছে, সেই গেমারদের জন্য রয়েছে আরও অন্যান্য সব গেম৷ এইসব হন্টিং এবং হান্টিং গেমের মধ্যে একটি হল, আইস: দ্য হান্ট৷ একটা পুরোনো পোড়ো বাড়ি থেকে নানান ধরনের মূল্যবান জিনিস আপনাকে নিয়ে আসতে হবে৷ তবে সাবধান, কারণ এইসব কিছু পাহারা দেওয়ার জন্য রয়েছে ভয়ঙ্কর সব ভূতেরা৷ শোনা যায়, অনেকেই এই গেমটি খেলে, বেশ ভয় পেয়ে, নিজের মোবাইল থেকে সোজা আনইনস্টল করে দিয়েছেন৷

asylum-horror-game

সিনেমার পর্দায় দ্য কনজিউরিং, অ্যানাবেল অথবা অ্যামিটিভিল হররে, ভূতের হাত থেকে পরিবারকে রক্ষা করার লড়াই আমরা দেখেছি৷ সেরকমই হাড় হিম করা অভিজ্ঞতা পেতে হলে আপনাকে খেলতে হবে ফিয়ার:ক্রিপি ক্রিম হাউস অথবা অ্যাসাইলেম:হরর গেম কিছু কিছু গেমের গ্রাফিক্সের মান এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, তা হলিউডি সিনেমাকেও হার মানায়৷

এ তো গেল মোবাইলে ভূতেদের গেমের কথা৷ তবে এবার যে গেমের কথা না বললেই নয় তা হল, এলিয়েন আইসোলেশন৷ এই ভূত আবার যে সে ভূত নয়৷ ভিনগ্রহী ভূত, এক ভয়ঙ্কর রকমের প্রাণী ভয় দেখাবে আপনাকে৷ সুদূর মহাকাশে নানা রকম কসরত করে আপনাকে প্রাণে বাঁচতে হবে৷

slendrina-the-seller

এরকমই রয়েছে আরও বহু হু গেম৷ যা কখনও আপনাকে আনন্দ দেবে, কখনও বা রোমাঞ্চকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তৈরি করবে এক ভুতুড়ে আবহ৷ আর এক্ষেত্রে গ্রাফিক্সের অবদান অনস্বীকার্য৷ আর এখন তো আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স অথবা থ্রি ডি গেমে মজেছেন সকলেই৷ যেখানে ভয়ঙ্করমুখো সব ভূতেরা ওৎ পেতে বসে আছে আপনার জন্য৷ তবে এসব গেম খেলার আগে একটু ভেবে নিন৷ সাহস আছে তো মোকাবিলা করার? হন্টিং গেমের প্রভাব আপনাকে তাড়া করবে না মাঝরাতে ঘুমের মধ্যে৷ অনেক প্রশ্ন, অনেক গোলোকধাঁধা৷ তার মধ্যেই আপনাকে হতে হবে বিজয়ী৷ ভূত চতুর্দশীতে নামবেন নাকি সম্মুখ সমরে?