পুজোয় কেমন প্রেম করবেন এই সেলেবরা!

1446
debjani
দেবযানী সরকার

শুধু বসন্ত নয়, প্রেমের হাতছানি দেয় শরৎও৷ কাশফুলের দোলায় ঢেউ ওঠে অনেক যুবক-যুবতির যৌবনে৷দুর্গাপুজোর কটাদিন চুটিয়ে প্রেম বাঙালি নস্টালজিয়ার একটা বড় অংশ৷এবার ক্যাম্পাসে পুজো প্রেমের অভিজ্ঞতা নিয়ে টলি পাড়ার কন্যেরা হাঁটলেন তাঁদের ডাউন মেমোরি লেন ধরে৷

মনামী ঘোষ
পুজোয় সেইভাবে ঠিক প্রেম হয়নি৷ তবে যখন বড় হলাম তখন দেখতাম পুজোর সময় পাড়ার ছেলেরা পেছন পেছন ঘুরত৷ আর আমি কুইন কুইন ভাব করে ঘুরে বেড়াতাম৷এটা আমি ভীষণ এনজয় করতাম৷ এখনও অনেক ছেলেই দেখে কিন্তু আগের মতো ফিলিংসটা হয় না৷

শ্রীলেখা মিত্র
পুজোর সময় একটা প্রেম প্রেম ভাব সব বাঙালি ছেলেমেয়েদের মধ্যেই হয়৷ তো সবাই করে৷তবে বেশিরভাগটাই সিরিয়াস নয়৷ আমার তো অন্তত হয়নি৷আমার প্রেম তো পঞ্চমী, ষষ্ঠীতে শুরু হত আর দশমীতে শেষ হয়ে যেত৷সত্যি! সেই দিনগুলো খুব মিস করি৷এখন তো বয়স বেড়ে গিয়েছে৷ আগের মতো আর পুজোর এক্সাইটমেন্টটা নেই৷

APARNA-SRILEKHA-134

শ্রাবন্তী
পুজোর সময় সকাল বেলাতেই সেজেগুজে মন্ডপে বসে পড়তাম৷ সারাদিন পাড়ার বন্ধুরা চুটিয়ে আড্ডা দিতাম৷ পুজোর ক’টাদিন আমি অনেক প্রোপোজাল পেতাম৷ ব্যাপারটা বেশ ভালো লাগতো তবে খুব একটা পাত্তা দিতাম না৷ মনে আছে, একবার একটা ছেলেকে পাড়ার মণ্ডপে চড় মেরেছিলাম৷

অরুণিমা
উফ! পুজোর প্রেম বলতে গেলেই আমি কেমন ফ্ল্যাশব্যাকে চলে যাই৷ একবার অষ্টমীতে পুজোয় ম্যাডক্স স্কোয়ারে আড্ডা মারছি৷ সন্ধিপুজো হচ্ছিল তখন৷ সেই সময় একটা ছেলেকে দেখেছিলাম৷তারপর আর ওর থেকে চোখ সরাতে পারেনি৷ যতক্ষণ ছিলাম, ততক্ষণ আমার দুটো চোখ শুধু ছেলেটার দিকেই ছিল৷ পরেও কয়েকবার ম্যাডক্সে গিয়েছি শুধু ওই ছেলেটার যদি আর একবার দেখা পাই সেটা ভেবে৷এখনও ছেলেটার মুখ ভুলতে পারিনি৷ওটাই বলতে পার আমার পুজোর প্রেম৷ ওই একবারই হয়েছিল৷এবারও ম্যাডক্সে যাব৷দেখা যাক এবছর কি হয়!